ফেসবুক লাইভে তাসনিম খলিলের মিথ্যাচারের জবাব দিলো জনসাধারণ

নিউজ ডেস্ক : নাস্তিক ব্লগার আরিফুর রহমানের পেইজ থেকে সুইডেনে পালিয়ে যাওয়া দেশদ্রোহী সাংবাদিক তাসনিম খলিলের লাইভ অনুষ্ঠানে করা বিভিন্ন বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ করেছে সাধারণ মানুষ। উক্ত লাইভে তাসনিম খলিল বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার সহ বিভিন্ন প্রকারের ইসলাম বিরোধী কথা বললে জনসাধারণ ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের বক্তব্যের সমালোচনা করেন।

২৬ মে বাংলাদেশ সময় রাত ১১টার দিকে শুরু হওয়া লাইভে প্রথম থেকেই আওয়ামী সরকারের প্রতি আক্রমণাত্মক ছিলেন তাসনিম খলিল। এসময় তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করলে মোহাম্মদ রাশেদ খান কমেন্টে লিখেন, শেখ হাসিনাকে নিয়ে মিথ্যাচার করে লাভ নেই। তার মত নেত্রী আমরা পেয়েছি আমাদের ভাগ্য। যারা মিথ্যাচার করছেন এরা শেখ হাসিনার পায়ের নখের ও সমান না।

এছাড়া এলেক্স লিখেন, আপনাদের জাতীয়ভাবে পাবনা মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করে বুদ্ধিজীবী ঘোষণা করা হোক। মামুন খান লিখেন, সমালোচনা তো সবাই করে, ভালো কথা কেউ বলে না । আপনারা সেম গরুর দলের মধ্যে পড়ে গেলেন ।

অপরদিকে ইসলামকে কটূক্তি করে কথা বলায়, জনসাধারণ তাদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে বিভিন্ন যুক্তি উপস্থাপন করে কমেন্ট করতে থাকনে। বিশিষ্টজনদের অভিমত, দলীয় রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়নে যখন দলীয় কর্মীরা ব্যর্থ, ঠিক তখনই এসব পেইড এজেন্ট নিয়োগ করেছে বিএনপি। যারা বিভিন্ন বিভ্রান্তিকর যুক্তি দিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে খেপিয়ে তোলার চেষ্টা করছে। কিন্তু সাধারণ মানুষের তৎপরতায় তার সেই ষড়যন্ত্র সফল হলো না। উপরন্তু তারা অনলাইনে ধোলাইয়ের শিকার হয়েছেন। এ থেকেই প্রমাণিত হয়, বিএনপি জনবিচ্ছিন্ন ও মিথ্যাবাদী একটি রাজনৈতিক দল।

এ বিষয়ে এক ব্লগারের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, বর্তমান সময়ে সাধারণ মানুষ আর নেতিবাচক কথা শুনতে চায় না। সকলেই উন্নয়নের সঙ্গী হতে চায়। নিশ্চয়ই ফাঁকা বুলি ছুড়ে বেশিদিন টিকে থাকা যায় না। এদিকে সাধারণ মানুষের এই বিরূপ মনোভাবের বিষয় তাসনিম খলিলের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তারা কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

Comments..
sidebar
আগের সংবাদ
পরের সংবাদ